মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

এক নজরে খাগড়াছড়ি

১।    আয়তনঃ ২,৬৯৯.৫৬ বর্গ কি.মি.।

২।    নির্বাচনী এলাকাঃ ২৯৮ পার্বত্য খাগড়াছড়ি।

৩।    সংসদীয় আসনঃ ০১টি।

৪।    উপজেলাঃ ০৯টি (খাগড়াছড়ি সদর, দীঘিনালা, পানছড়ি, মাটিরাঙ্গা, গুইমারা, মানিকছড়ি, মহালছড়ি, লক্ষ্মীছড়ি ও রামগড়)।

৫।    থানাঃ ০৯টি (খাগড়াছড়ি সদর, দীঘিনালা, পানছড়ি, মাটিরাঙ্গা, গুইমারা, মানিকছড়ি, মহালছড়ি, লক্ষ্মীছড়ি ও রামগড়)।

৬।    পৌরসভাঃ ৩টি (খাগড়াছড়ি, রামগড় ও মাটিরাঙ্গা)।

৭।    ইউনিয়নঃ ৩৮টি।

৮।    মৌজাঃ ১২১টি।

৯।    গ্রামঃ ১,৩৮৮টি।

১০।  জনসংখ্যাঃ ৫,১৮,৪৬৩ জন (পুরুষ-২,৭১,১৩১জন এবং মহিলা-২,৪৭,৩৩২জন)

(ক) উপজাতি-২,৬৯,৯০৪জন (৫২%)। [চাকমা-১,৪৬,০৪৫, মারমা-৫৫,৮৪৪, ত্রিপুরা-৬৭,৩৪২, অন্যান্য-৬৭৩]

(খ) অ-উপজাতি-২,৪৮,৫৫৯ জন (৪৮%)।

১১।  জনসংখ্যা ঘনত্বঃ প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ১৯২ জন।

১২।  শিক্ষার হারঃ ৪৪.০৭% (পুরুষ-৫৪.১৯%, মহিলা-৩৩.৬২%)।

১৩।  প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গমনের হারঃ৮৩%।

১৪।  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানঃ ৫৪৭টি।

(ক) কলেজ-১৮টি।

(খ) উচ্চ বিদ্যালয়-৭১টি (সরকারি-৫টি ও বেসরকারি-৬৬টি)।

(গ) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়-৪২০টি (সরকারি-৩২০টি ও বেসরকারি-১০০টি)।

(ঘ) কিন্ডার গার্টেন-০৯টি।

(ঙ) মাদ্রাসা-১৩টি (মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড এর অধীন)।

(চ) এবতেদায়ী মাদ্রাসা-২২টি।

(ছ) অন্যান্য ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-০৩টি।

(জ) কারিগরি বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়-০১টি।

(ঝ) টেক্সটাইল ভোকেশনাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট-০১টি।

(ঙ) কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র-০১টি।

১৫।    ধর্মীয় উপাসনালয়ঃ ৭৫১টি। (ক) মসজিদ-২৫৫টি। (খ) বৌদ্ধ মন্দির (ক্যাং)-২৬৩টি। (গ) মন্দির-২০৭টি। (ঘ) গীর্জা-২৬টি।

১৬।    গুচ্ছগ্রাম ও ভারত প্রত্যাগত শরণার্থীঃ

            (ক) ১। গুচ্ছগ্রামের সংখ্যা-৮১টি।

                 ২। গুচ্ছগ্রামে বসবাসরত পরিবার-৫৩,৮৫৫টি।

                 ৩। গুচ্ছগ্রামে রেশন কার্ডধারী পরিবার-২৬,২২০টি।

                 ৪। রেশন কার্ডবিহীন পরিবার-২৭,৬৩৫টি।

                 ৫। গুচ্ছগ্রামে বসবাসকারী জনসংখ্যা-২,১২,১৬৫জন।

            (খ) ১। ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরণার্থী পরিবার-১২,১৭০টি।

                 ২। রেশন কার্ডধারী পরিবার-১২,১৭০টি।

                 ৩। ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরণার্থীর সংখ্যা-৬৪,৩৩৪জন।

১৭।    খাস জমি সংক্রান্তঃ

(ক) মোট খাস জমির পরিমাণ-৩,০৫,৯৬৫.৭৩ একর।

(খ) বন্দোবস্তকৃত জমির পরিমাণ-১,৮০,২৭৯.৬২ একর।

(গ) বর্তমানে খাস জমির পরিমাণ-১,২৫,৬৮৬.১১ একর।

১৮।   সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানঃ

(ক) সিনেমা হল-০১টি।

(খ) ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট-০১টি।

(গ) শিশু একাডেমি-০১টি।

(ঘ) শিল্পকলা একাডেমি-০১টি।

১৯।   স্টেডিয়ামঃ০১টি (জিমনেসিয়ামসহ)।

২০।   প্রেস ক্লাবঃ ০৪টি।

২১।   জেলা কারাগারঃ ০১টি।

২২।   দর্শনীয় স্থানঃ

v        আলুটিলা পাহাড়ের রহস্যময় সুড়ঙ্গ ;

v        নুনছড়ি মৌজার দেবতা পুকুর;

v        রিছাং ঝর্ণা;

v        ঐতিহাসিক রামগড় (ইস্টার্ন ফ্রন্টিয়ার রাইফেলস্ বর্তমান বিডিআর এর প্রথম হেডকোয়ার্টার);

v        রামগড় লেক;

v        পাহাড়ি কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের খামার;

v        শান্তিপুর অরণ্য কুটির, পানছড়ি

v        দীঘিনালা সংরক্ষিত বনাঞ্চল;

v        ভগবান টিলা।

২৩।   পর্যটন কেন্দ্রঃ

(ক) আলুটিলা পর্যটন কেন্দ্র।

                        (খ) নূনছড়ি দেবতা পুকুর।

                        (গ) দীঘিনালা সংরক্ষিত বনাঞ্চল।

(ঘ) খাগড়াছড়ি পাহাড়ি কৃষি গবেষণা কেন্দ্র।

(ঙ) দুই টিলা ও তিন টিলা, দীঘিনালা।

(চ) ভগবান টিলা

২৪।    নদীঃ ০৩টি (চেঙ্গী, মাইনী, ফেণী)।

২৫।   চা-বাগানঃ ০১টি (রামগড়)।

২৬।   রাবার বাগানঃ ৩,৪০০.০০ একর।

২৭।   সেনাবাহিনী ব্রিগেডঃ ০২টি (খাগড়াছড়ি ও গুইমারা)।

২৮।   বিজিবি সেক্টরঃ ০২টি।

২৯।   ব্যাংকঃ ১০টি ( মোট শাখা-২১টি)।

৩০।   এনজিওঃ ৩৪টি। (ক) জাতীয় ও আন্তর্জাতিক-০৭টি। (খ) স্থানীয়-২৭টি।

৩১।   প্রধান সমস্যাঃ বিদ্যুৎ।

৩২।   যোগাযোগ ব্যবস্থাঃ পাকা রাস্তা-২৯৬.৩৬ কি. মি.। অর্ধ পাকা রাস্তা-২৬১ কি. মি.।

৩৩।   প্রাকৃতিক সম্পদঃ   

(ক) কৃষিজ-(১) প্রধান ফসলঃ ধান ,গম, ভুট্টা, সরিষা, তুলা, আখ ও শাকসবজি ইত্যাদি।

                (২) ফলমূলঃ আম, কাঁঠাল, আনারস, কলা, পেঁপে, পেয়ারা, লেবু  ও তরমুজ ইত্যাদি।

(খ) খনিজ- গ্যাস (সিমুতাং গ্যাসফিল্ড, মানিকছড়ি)।

(গ) বনজ- সেগুন, গামারী, কড়ই, গর্জন, চাপালিশ, জারুল ইত্যাদি।

৩৪।   সম্ভাবনাময় ক্ষেত্রঃ

(ক) পর্যটন                                 (খ) বনজ সম্পদ

(গ) খনিজ সম্পদ                         (ঘ) হস্তশিল্প

(ঙ) রাবার শিল্প                            (চ) ফলভিত্তিক শিল্প।

ছবি